প্রতিবেশী


নিকট আত্মীয় স্বজন আশে পাশে নেই। দূরে থাকে বা অন্য শহরে থাকে সবাই। তাই প্রতিবেশী রাই আত্মীয়। বিপদে আপদে, আনন্দে, প্রয়োজনে তাদেরকেই পাশে পাই।রমজানে প্রতিবেশীর কাছে থেকে উপহার পেয়েছি।ঈদের পর ঢাকা আসতে না আসতেই উনাদের বাসায় দাওয়াত 🥰🥰। বাচ্চাদের ঈদ সেলামি আরো বেড়ে গেলো দাওয়াতে গিয়ে। আর অন্যান্য বাসা থেকে প্রায় সময়ই খাবার দাবার তো আসতেই থাকে, আলহামদুলিল্লাহ।

ভালো প্রতিবেশী আল্লাহ তায়ালার একটি অশেষ নেয়ামত। উপহার, খাবার আদান প্রদানে এই সম্পর্ক আরো সুন্দর হয়।উপহার আদান-প্রদানে পরস্পরের মধ্যে ভালবাসা সৃষ্টি হয়।

নবী করীম (ছাঃ) বলেন, تَهَادُوْا تَحَابُّوْا- ‘পরস্পরকে উপহার দাও। এতে তোমাদের মধ্যে ভালবাসা সৃষ্টি হবে’।আদাবুল মুফরাদ হা/৫৯৪।

হাদিয়া প্রদানের ক্ষেত্রে নিকটতম প্রতিবেশীকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। আয়েশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি বললাম, يَا رَسُولَ اللهِ، إِنَّ لِى جَارَيْنِ، فَإِلَى أَيِّهِمَا أُهْدِى قَالَ إِلَى أَقْرَبِهِمَا مِنْكِ بَابًا- অর্থাৎ হে আল্লাহর রাসূল (ছাঃ)! আমার দু’জন প্রতিবেশী আছে। আমি তাদের কার নিকট উপঢৌকন পাঠাব? রাসূল (ছাঃ) বললেন, ‘যার দরজা (বাড়ী) তোমার বেশী নিকটবর্তী’।বুখারী, হা/২২৫৯; আদাবুল মুফরাদ হা/১০৭-১০৮।

বাড়ীতে ভাল কোন খাদ্য বা তরকারী পাক হ’লে তাতে প্রতিবেশীকে শরীক করা রাসূল (ছাঃ)-এর নির্দেশ। তিনি আবু যর (রাঃ)-কে বলেন, يَا أَبَا ذَرٍّ إِذَا طَبَخْتَ مَرَقَةً فَأَكْثِرْ مَاءَهَا وَتَعَاهَدْ جِيْرَانَكَ ু ‘হে আবু যর! যখন কোন তরকারী পাক করবে, তখন তাতে একটু বেশী পানি দিয়ে ঝোল বাড়াও এবং তোমার প্রতিবেশীকে পৌঁছাও’।[20] অন্য বর্ণনায় আছে, وَإِذَا صَنَعْتَ مَرَقَةً فَأَكْثِرْ مَاءَهَا ثُمَّ انْظُرْ أَهْلَ بَيْتٍ مِنْ جِيْرَانِكَ فَأَصِبْهُمْ مِنْهُ بِمَعْرُوْفٍ ‘যখন ঝোল পাকাবে তখন তাতে পানি বেশী করে দিবে এবং তৎপর প্রতিবেশীর প্রতি লক্ষ্য করবে ও তা তাদেরকে সদিচ্ছা সহকারে বিতরণ করবে’।আদাবুল মুফরাদ হা/১১৩; ছহীহুল জামে‘ হা/৩৭৭৯। তিনি আরো বলেন,إِذَا طَبَخْتَ مَرَقَةً فَأَكْثِرْ مَاءَ الْمَرَقَةِ وَتَعَاهَدْ جِيْرَانَكَ أَوْ اَقْسِمْ فِيْ جِيْرَانِكَ ‘যখন ঝোল পাকাও, তখন তাতে পানি বেশী করে দিবে এবং তা প্রতিবেশীদের মাঝে বিতরণ করবে’।মুসলিম, মিশকাত হা/১৯৩৭; আদাবুল মুফরাদ হা/১১৪

আজকের দিনে দুই প্রতিবেশী থেকে উপহার পেলাম। কাঁচা আম ও আমের আচার।